সন্ত্রাস বিরোধী আইন, ২০০৯


সন্ত্রাস বিরোধী আইন, ২০০৯

( ২০০৯ সনের ১৬ নং আইন )

[২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০০৯]

কতিপয় সন্ত্রাসী কার্য প্রতিরোধ এবং উহাদের কার্যকর শাস্তির বিধানসহ আনুষঙ্গিক বিষয়াদি সম্পর্কে বিধান প্রণয়নকল্পে প্রণীত আইন

 

যেহেতু কতিপয় সন্ত্রাসী কার্য প্রতিরোধ এবং উহাদের কার্যকর শাস্তির বিধানসহ আনুষঙ্গিক বিষয়াদি সম্পর্কে বিধান প্রণয়ন করা সমীচীন ও প্রয়োজনীয়;

সেহেতু এতদ্বারা নিম্নরূপ আইন করা হইল :-

সূচী

ধারাসমূহ

 

প্রথম অধ্যায়

প্রারম্ভিক

১। সংক্ষিপ্ত শিরোনাম, প্রয়োগ ও প্রবর্তন

২। সংজ্ঞা

৩। অন্যান্য শব্দ ও অভিব্যক্তির প্রযোজ্যতা

৪।আইনের প্রাধান্য

৫। অতিরাষ্ট্রিক প্রয়োগ

দ্বিতীয় অধ্যায়

অপরাধ ও দণ্ড

৬। সন্ত্রাসী কার্য

৭। সন্ত্রাসী কার্যে অর্থায়ন সংক্রান্ত অপরাধ

৮। নিষিদ্ধ [সত্তার] সদস্যপদ

৯। নিষিদ্ধ [সত্তা] সমর্থন

১০। অপরাধ সংঘটনে ষড়যন্ত্রের (criminal conspiracy) শাস্তি

১১। অপরাধ সংঘটনের প্রচেষ্টার (attempt) শাস্তি

১২। অপরাধ সংঘটনে সাহায্য ও সহায়তার (aid and abetment) শাস্তি

১৩। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড প্ররোচিত (instigation) করিবার শাস্তি

১৪। [অপরাধীকে আশ্রয় প্রদানের শাস্তি]

তৃতীয় অধ্যায়

বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্ষমতা

১৫। বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্ষমতা

১৬। ব্যাংকের দায়িত্ব

১ চতুর্থ অধ্যায়

নিষিদ্ধ ঘোষণা ও তালিকাভুক্তকরণ এবং জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশন বাস্তবায়ন

১৭। সন্ত্রাসী কার্যের সহিত জড়িত ব্যক্তি বা সত্তা

১৮। নিষিদ্ধ ঘোষণা ও তালিকাভুক্তকরণ

১৯। পুনঃনিরীক্ষা (Review)

২০। তালিকাভুক্ত ব্যক্তি বা নিষিদ্ধ সত্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ

২০ক। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশন বাস্তবায়নে পদক্ষেপ

পঞ্চম অধ্যায়

অপরাধের তদন্ত

২১। পুলিশ কর্তৃক সাক্ষীকে পরীক্ষা সম্পর্কিত বিশেষ বিধান

২২। ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক সাক্ষীর বিবৃতি রেকর্ড সম্পর্কিত বিশেষ বিধান

২৩। অভিযুক্ত ব্যক্তির স্বীকারোক্তি রেকর্ড সম্পর্কিত বিশেষ বিধান

২৩ক। তদন্তকালীন সন্ত্রাসী সম্পত্তি জব্দ বা ক্রোকের বিশেষ বিধান

২৪। তদন্তের সময়সীমা

২৫। কতিপয় মামলার তদন্তের ক্ষেত্রে সময়সীমা বৃদ্ধি

২৬। পুনঃসমর্পণ (Remand)

ষষ্ঠ অধ্যায়

দায়রা জজ কর্তৃক বিচার

২৭। দায়রা জজ বা অতিরিক্ত দায়রা জজ কর্তৃক অপরাধের বিচার সম্পর্কিত বিধান

সপ্তম অধ্যায়

বিশেষ ট্রাইব্যুনাল কতৃক বিচার

২৮। সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন

২৯। বিশেষ ট্রাইব্যুনালের পদ্ধতি

৩০। বিশেষ ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রমে কার্যবিধির প্রয়োগ

৩১। আপীল এবং মৃত্যুদণ্ড অনুমোদন

৩২। জামিন সংক্রান্ত বিধান

৩৩। বিশেষ ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক মামলা নিষ্পত্তির নির্ধারিত সময়সীমা

অষ্টম অধ্যায়

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হইতে উদ্ভূত সম্পদ

৩৪। [সন্ত্রাসী কর্মকান্ড-লব্ধ সম্পদের দখল (Possession of property obtained from terrorist activities)]

৩৫। [সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড-লব্ধ সম্পদ এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হইতে উদ্ভূত সম্পদ বাজেয়াপ্ত (Confiscation of assets obtained from terrorist activities and proceeds of terrorism)]

৩৬। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড-লব্ধ সম্পদ বাজেয়াপ্তকরণের পূর্বে কারণ দর্শাইবার নোটিশ জারী

৩৭। আপীল

নবম অধ্যায়

পারস্পরিক আইনগত সহায়তা

৩৮। পারস্পরিক আইনগত সহায়তা

দশম অধ্যায়

সাধারণ বিধানাবলী

৩৯। অপরাধের আমলযোগ্যতা ও জামিন অযোগ্যতা

৪০। তদন্ত ও বিচার বিষয়ে পূর্বানুমোদনের অপরিহার্যতা

৪১। বিশেষ ট্রাইব্যুনালে এবং বিশেষ ট্রাইব্যুনাল হইতে মামলা স্থানান্তর

৪২। তফসিল সংশোধনের ক্ষমতা

৪৩। বিধি প্রণয়নের ক্ষমতা

৪৪। মূল পাঠ এবং ইংরেজী পাঠ

৪৫। রহিতকরণ ও হেফাজত

তফসিল

মূল আইন  

2 thoughts on “সন্ত্রাস বিরোধী আইন, ২০০৯

  1. ফৌজদারী আইনের নাম ও ধারা সমূহের তালিকা প্রকাশ করা প্রয়োজন এবং শ্রম আইনের বিবরনও প্রকাশ করা দরকার।

    Liked by 1 person

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s